মঙ্গলবার, ২৫ জুন ২০২৪, ০২:১৭ অপরাহ্ন
শিরোনাম ::
শেরপুরে আওয়ামী লীগের ৭৫তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী পালিত সাতক্ষীরায় আওয়ামী লীগের ৭৫তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী পালন উন্নয়নের অগ্রযাত্রায় রূপকল্প ২০৪১ বাস্তবায়নে বিসিকের ভূমিকা শীর্ষক আলোচনা সভা ৪৫তম জাতীয় বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি সপ্তাহ ও বিজ্ঞান মেলার সমাপনী অনুষ্ঠান অবশেষে শেরপুরে রেললাইন নকলায় বিদ্যুৎস্পৃষ্টে নিহত ১ বঙ্গবন্ধুর বাংলায় দুর্নীতিবাজ ও সন্ত্রাসীদের স্থান নাই শহিদ লিয়াকত স্মৃতি বৃত্তি পরীক্ষা চকরিয়া জোন-১ এর বৃত্তি প্রদান ও সংবর্ধনা নকলা উপজেলা পরিষদের নবনির্বাচিত চেয়ারম্যান ও ভাইস চেয়ারম্যানদের দায়িত্ব গ্রহণ নকলা প্রেস ক্লাব পরিবারের ঈদ পুনর্মিলনী অনুষ্ঠানে সাংগঠনিক আলোচনা

বঙ্গবন্ধু ফাউন্ডেশনের ‘‘মুজিব নগর সরকারের ধারাবাহিকতায় বর্তমান সরকারের সফলতা” শীর্ষক আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত

রিপোর্টারের নাম / ৩২ বার
আপডেট সময় :: বুধবার, ২৪ এপ্রিল, ২০২৪, ১২:২৮ পূর্বাহ্ন

এস এইচ শাকিল

 

২৩ এপ্রিল মঙ্গলবার বঙ্গবন্ধু ফাউন্ডেশনের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের বঙ্গবন্ধু মিলনায়তনে মুজিব নগর দিবস উপলক্ষে “মুজিব নগর সরকারের ধারাবাহিকতায় বর্তমান সরকারের সফলতা” শীর্ষক আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন সংগঠনের সভাপতি সাবেক পররাষ্ট্রমন্ত্রী ও বর্তমান পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সভাপতি ড. এ কে আব্দুল মোমেন এমপি। প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন ধর্ম মন্ত্রী ফরিদুল হক খান এমপি। অনুষ্ঠান সঞ্চালনা করেন সংগঠনের প্রতিষ্ঠাতা ও নির্বাহী সভাপতি এডভোকেট ড. মশিউর মালেক।

 

প্রধান অতিথি তাঁর বক্তব্যে বলেন ১৯৭১ সালের ১৭ এপ্রিল কুষ্টিয়া  জেলার বৈদ্যনাথতলার আম্রকাননে বর্তমান মেহেরপুরে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের নেতৃত্বে এবং তাঁর অনুপস্থিতিতে মুজিব নগর সরকার গঠিত হয় এবং ৯ মাস  যুদ্ধ পরিচালনা করে ১৯৭১ সালের ১৬ ডিসেম্বর বিজয় অর্জিত হয়।১৯৭২ সালের ১০জানুয়ারী বঙ্গবন্ধু স্বদেশে প্রত্যাবর্তন করে দেশ গড়ার কাজে আত্মনিয়োগ করেন। বঙ্গবন্ধু কন্যা প্রধানমন্ত্রী দেশরত্ন শেখ হাসিনা বঙ্গবন্ধুর আদর্শে উজ্জীবীত হয়ে সোনার বাংলা বিনির্মাণে উন্নয়নের রোল মডেল হিসাবে বিশ্বে প্রসংশিত।

 

সভাপতির বক্তব্যে ড. এ কে আব্দুল মোমেন বলেন মুজিব নগর দিবস উপলক্ষে  আজকে জাতির পিতাসহ সকল শহীদদের শ্রদ্ধার সাথে স্মরণ করছি। বঙ্গবন্ধু বিহীন বাংলাদেশে মুজিবনগর সরকার দেশ স্বাধীন করেছে। মাননীয় প্রধানমন্ত্রী  শেখ হাসিনার নেতৃত্বে দেশ উন্নয়নের মহাসড়কে পদার্পণ করেছে। প্রধানমন্ত্রী দুর্নীতির বিরুদ্ধে জিরো টলারেন্স  নীতি গ্রহণ করলেও দুর্নীতিবাজরা থামেনি।তাদের থামাতে না পারলে এ উন্নয়ন মুখ থুবড়ে পড়বে।তাই এখনি সকলকে সজাগ হতে হবে। বঙ্গবন্ধু ফাউন্ডেশনের কর্মীদের এসব দুর্নীতিবাজদের  চিহ্নিত করে জনগণের কাছে তাদের মুখোশ উন্মোচিত করতে হবে।

 

বিশেষ অতিথি এস এম শাহজাদা এমপি বলেন মুজিব নগর সরকার গঠনের প্রেক্ষাপট ও মুক্তিযুদ্ধে তাদের নেতৃত্বকে হৃদয়ে ধারণ করে আজ বঙ্গবন্ধু কন্যা দেশের উন্নয়ন করে যাচ্ছেন।এ উন্নয়ন ধরে রাখতে হ’লে বঙ্গবন্ধুর সৈনিকদের ভ্যানগার্ড হিসেবে পাহাড়া দিতে হবে। বঙ্গবন্ধু ফাউন্ডেশনের নেতাকর্মীরা সেক্ষেত্রে অগ্রণী ভূমিকা পালন করবে।

 

সভায় অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন বঙ্গবন্ধু ফাউন্ডেশন এর কেন্দ্রীয় কমিটির সিনিয়র সহ-সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা ডাক্তার আব্দুস সালাম, সহ-সভাপতি কাজী মফিজুল হক, সহ-সভাপতি আব্দুল খালেক, আজীবন সদস্য ও সাবেক অতিরিক্ত সচিব (অব.) ড. রেজাউল ইসলাম, যুগ্ন সাধারণ সম্পাদক রাশিদা হক কণিকা, অর্থ সম্পাদক আব্দুস সামাদ, তথ্য ও গবেষণা সম্পাদক ও পুষ্পধারা প্রপার্টিজ লিমিটেডের ভাইস চেয়ারম্যান এডভোকেট মনিরুজ্জামান (শাশ্বত মনির), ক্রীড়া সম্পাদক ও ঢাকা মহানগর দক্ষিণ এর আহবায়ক এম টিপু সুলতান, শিক্ষা সম্পাদক অধ্যাপক ড. আবু তাহের, সংগঠনের আজীবন সদস্য ও বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের ধর্ম বিষয়ক কেন্দ্রীয় উপকমিটির সদস্য সৈয়দ আইনুল হক, বঙ্গবন্ধু ফাউন্ডেশন মহানগর দক্ষিণের যুগ্ম আহবায়ক রেজাউল করিম শানু, আরমান হোসেন, ঢাকা মহানগর উত্তর বঙ্গবন্ধু ফাউন্ডেশনের সভাপতি ও শেখ ফজিলাতুন্নেছা মুজিব বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর অধ্যাপক ড. মাহবুবুর রহমান, আজীবন সদস্য জসিম উদ্দিন, শিল্প মন্ত্রীর পিএস এডভোকেট শহীদুল্লাহ শহীদ, বঙ্গবন্ধু ফাউন্ডেশন মহানগর উত্তরের মহিলা বিষয়ক সম্পাদক সোমা আক্তার, আজীবন সদস্য আইরিন ইসলাম, আজীবন সদস্য আমিনা ফেরদৌসিসহ বঙ্গবন্ধুর আদর্শের সৈনিকগণ।

 

অনুষ্ঠান শেষে ঈদ পূনর্মিলনী এবং ১লা বৈশাখ উপলক্ষে মনোজ্ঞ সংগীতানুষ্ঠানের আয়োজন ছিল।নৈশভোজের  মাধ্যমে অনুষ্ঠান শেষ হয়।

এস এইচ শাকিল

 

২৩ এপ্রিল মঙ্গলবার বঙ্গবন্ধু ফাউন্ডেশনের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের বঙ্গবন্ধু মিলনায়তনে মুজিব নগর দিবস উপলক্ষে “মুজিব নগর সরকারের ধারাবাহিকতায় বর্তমান সরকারের সফলতা” শীর্ষক আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন সংগঠনের সভাপতি সাবেক পররাষ্ট্রমন্ত্রী ও বর্তমান পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সভাপতি ড. এ কে আব্দুল মোমেন এমপি। প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন ধর্ম মন্ত্রী ফরিদুল হক খান এমপি। অনুষ্ঠান সঞ্চালনা করেন সংগঠনের প্রতিষ্ঠাতা ও নির্বাহী সভাপতি এডভোকেট ড. মশিউর মালেক।

 

প্রধান অতিথি তাঁর বক্তব্যে বলেন ১৯৭১ সালের ১৭ এপ্রিল কুষ্টিয়া  জেলার বৈদ্যনাথতলার আম্রকাননে বর্তমান মেহেরপুরে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের নেতৃত্বে এবং তাঁর অনুপস্থিতিতে মুজিব নগর সরকার গঠিত হয় এবং ৯ মাস  যুদ্ধ পরিচালনা করে ১৯৭১ সালের ১৬ ডিসেম্বর বিজয় অর্জিত হয়।১৯৭২ সালের ১০জানুয়ারী বঙ্গবন্ধু স্বদেশে প্রত্যাবর্তন করে দেশ গড়ার কাজে আত্মনিয়োগ করেন। বঙ্গবন্ধু কন্যা প্রধানমন্ত্রী দেশরত্ন শেখ হাসিনা বঙ্গবন্ধুর আদর্শে উজ্জীবীত হয়ে সোনার বাংলা বিনির্মাণে উন্নয়নের রোল মডেল হিসাবে বিশ্বে প্রসংশিত।

 

সভাপতির বক্তব্যে ড. এ কে আব্দুল মোমেন বলেন মুজিব নগর দিবস উপলক্ষে  আজকে জাতির পিতাসহ সকল শহীদদের শ্রদ্ধার সাথে স্মরণ করছি। বঙ্গবন্ধু বিহীন বাংলাদেশে মুজিবনগর সরকার দেশ স্বাধীন করেছে। মাননীয় প্রধানমন্ত্রী  শেখ হাসিনার নেতৃত্বে দেশ উন্নয়নের মহাসড়কে পদার্পণ করেছে। প্রধানমন্ত্রী দুর্নীতির বিরুদ্ধে জিরো টলারেন্স  নীতি গ্রহণ করলেও দুর্নীতিবাজরা থামেনি।তাদের থামাতে না পারলে এ উন্নয়ন মুখ থুবড়ে পড়বে।তাই এখনি সকলকে সজাগ হতে হবে। বঙ্গবন্ধু ফাউন্ডেশনের কর্মীদের এসব দুর্নীতিবাজদের  চিহ্নিত করে জনগণের কাছে তাদের মুখোশ উন্মোচিত করতে হবে।

 

বিশেষ অতিথি এস এম শাহজাদা এমপি বলেন মুজিব নগর সরকার গঠনের প্রেক্ষাপট ও মুক্তিযুদ্ধে তাদের নেতৃত্বকে হৃদয়ে ধারণ করে আজ বঙ্গবন্ধু কন্যা দেশের উন্নয়ন করে যাচ্ছেন।এ উন্নয়ন ধরে রাখতে হ’লে বঙ্গবন্ধুর সৈনিকদের ভ্যানগার্ড হিসেবে পাহাড়া দিতে হবে। বঙ্গবন্ধু ফাউন্ডেশনের নেতাকর্মীরা সেক্ষেত্রে অগ্রণী ভূমিকা পালন করবে।

 

সভায় অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন বঙ্গবন্ধু ফাউন্ডেশন এর কেন্দ্রীয় কমিটির সিনিয়র সহ-সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা ডাক্তার আব্দুস সালাম, সহ-সভাপতি কাজী মফিজুল হক, সহ-সভাপতি আব্দুল খালেক, আজীবন সদস্য ও সাবেক অতিরিক্ত সচিব (অব.) ড. রেজাউল ইসলাম, যুগ্ন সাধারণ সম্পাদক রাশিদা হক কণিকা, অর্থ সম্পাদক আব্দুস সামাদ, তথ্য ও গবেষণা সম্পাদক ও পুষ্পধারা প্রপার্টিজ লিমিটেডের ভাইস চেয়ারম্যান এডভোকেট মনিরুজ্জামান (শাশ্বত মনির), ক্রীড়া সম্পাদক ও ঢাকা মহানগর দক্ষিণ এর আহবায়ক এম টিপু সুলতান, শিক্ষা সম্পাদক অধ্যাপক ড. আবু তাহের, সংগঠনের আজীবন সদস্য ও বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের ধর্ম বিষয়ক কেন্দ্রীয় উপকমিটির সদস্য সৈয়দ আইনুল হক, বঙ্গবন্ধু ফাউন্ডেশন মহানগর দক্ষিণের যুগ্ম আহবায়ক রেজাউল করিম শানু, আরমান হোসেন, ঢাকা মহানগর উত্তর বঙ্গবন্ধু ফাউন্ডেশনের সভাপতি ও শেখ ফজিলাতুন্নেছা মুজিব বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর অধ্যাপক ড. মাহবুবুর রহমান, আজীবন সদস্য জসিম উদ্দিন, শিল্প মন্ত্রীর পিএস এডভোকেট শহীদুল্লাহ শহীদ, বঙ্গবন্ধু ফাউন্ডেশন মহানগর উত্তরের মহিলা বিষয়ক সম্পাদক সোমা আক্তার, আজীবন সদস্য আইরিন ইসলাম, আজীবন সদস্য আমিনা ফেরদৌসিসহ বঙ্গবন্ধুর আদর্শের সৈনিকগণ।

 

অনুষ্ঠান শেষে ঈদ পূনর্মিলনী এবং ১লা বৈশাখ উপলক্ষে মনোজ্ঞ সংগীতানুষ্ঠানের আয়োজন ছিল।নৈশভোজের  মাধ্যমে অনুষ্ঠান শেষ হয়।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর
Theme Created By ThemesDealer.Com
error: Content is protected !!
error: Content is protected !!